1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. admin@zzna.ru : admin@zzna.ru :
  3. sarderamun830@gmail.com : Sarder Alamin : Alamin Sarder
  4. wpsupp-user@word.com : wp-needuser : wp-needuser
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
বিভিন্ন জেলা,উপজেলা-থানা,পৈারসভা,কলেজ ও ইউনিয়ন পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক ।
সংবাদ শিরনাম :
বসিক উপ নির্বাচনে জনপ্রিয়তার শীর্ষে মো: রাশিক হাওলাদার চরকাউয়া খেয়াঘাটে অপ্রতিরোধ্য জুয়ার আসর ! বরিশালে ’’শিকদার এক্সপ্রেস’ কুরিয়ার এন্ড পার্সেল সার্ভিসের শুভ উদ্বোধন বরিশালে মাতৃছায়া মানব কল্যাণ সংস্থার ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী ববির বহিষ্কৃত ছাত্র বাকীর খুটির জোর কোথায়, অভিযোগের তীর প্রক্টরের দিকে ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে খালিদ কে দেখতে চাই বাকেরগঞ্জবাসী বদরুল আলম’কে ভাইস চেয়ারম্যান পদে পেতে চায় উপজেলাবাসী জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত আসন, বরিশাল বিভাগ থেকে আলোচনায় যারা কথিত ছাত্রলীগ নেতা জুবায়েরের খুটির জোর কোথায়! বিদ্যুৎ বিলের নামে চাঁদা কালেকশন হিজলায় নৌকার সমর্থকের হাতের রগ কাটার পর বসতঘরে অগ্নিসংযোগ

বিয়ের আগে শারীরিক সম্পর্কে জড়ালেই কারাদণ্ড

  • প্রকাশিত : শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৬২ 0 সংবাদ টি পড়েছেন
অনলাইন ডেস্ক // বিয়ে না করে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করলে সর্বোচ্চ এক বছরের কারাদণ্ড হবে। ইন্দোনেশিয়ার পার্লামেন্ট চলতি মাসে এমন একটি আইন পাস করতে যাচ্ছে। চলতি মাসেই দেশটির পার্লামেন্টে এই আইনটি পাস করতে পারে।

আইনটি পাস হলে, বিয়ের আগে শারীরিক সম্পর্কের অভিযোগে অভিযুক্তকে কয়েক বছর কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

ইন্দোনেশিয়ার আইনপ্রণেতা বামবাং উরিয়ান্তো এই বিলটির খসড়ার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহেই বিলটি আইনে পরিণত হতে পারে। আইনটি পাস হলে দেশীয় নাগরিকদের পাশাপাশি বিদেশি নাগরিক যারা ইন্দোনেশিয়ায় এসে বিয়ের আগে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হবেন তাদেরও কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন অনুসারে, এই আইন পাস হলে দেশের পর্যটন এবং বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ইন্দোনেশিয়ার ভাবমূর্তিকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশটির ব্যবসায়ী সম্প্রদায়।

বিলটিতে বলা হয়েছে, এই বিষয়ে শাস্তি তখনই কার্যকর হবে যখন কোনো পক্ষ কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানাবে কিংবা বিবাহিত কোনো ব্যক্তি যদি বিয়ের বাইরেও শারীরক সম্পর্কে লিপ্ত হয় এবং সে ক্ষেত্রে ভুক্তভোগী স্বামী বা স্ত্রী যদি কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানান। এ ছাড়া কোনো অবিবাহিত নারী বা পুরুষের বাবা–মা তাদের সন্তানের বিষয়ে অভিযোগ করেন। এমন অভিযোগ প্রমাণিত হলে ৬ মাস বা তার বেশি কারাদণ্ড হতে পারে।

এ বিষয়ে ইন্দোনেশিয়ার এমপ্লয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের ডেপুটি চেয়ারপারসন শিন্তা উইদজাজা সুকামদানি বলেন, ‘ব্যবসার ক্ষেত্রে এই আইনের প্রয়োগ আইনি জটিলতা তৈরি করবে এবং বিনিয়োগকারীদের ইন্দোনেশিয়ায় বিনিয়োগের বিষয়ে পুনর্বিবেচনা করতে বাধ্য করবে।’

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ