1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. sarderamun830@gmail.com : Sarder Alamin : Alamin Sarder
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৩:২০ অপরাহ্ন
নোটিশ :
বিভিন্ন জেলা,উপজেলা-থানা,পৈারসভা,কলেজ ও ইউনিয়ন পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক ।

এলপি গ্যাস: এক মাসের মধ্যেই দ্বিতীয়বারের মতো বাড়লো দাম

  • প্রকাশিত : শনিবার, ৬ নভেম্বর, ২০২১
  • ৫৪ 0 বার সংবাদি দেখেছে

অনলাইন ডেস্ক :: বাংলাদেশে এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন বা বিইআরসি লিকুইফাইড পেট্রোলিয়াম গ্যাস বা এলপিজির দাম সিলিন্ডার প্রতি ৫৪ টাকা বাড়িয়েছে।

ফলে বুধবার মধ্যরাতে ডিজেল ও কেরোসিনের দাম বাড়ানোর পর একদিন না পেরুতেই আজ বৃহস্পতিবার বাড়িয়ে দেয়া হলো রান্না ও পরিবহনের ব্যবহৃত গ্যাসের দাম।

কমিশনের সদস্য (গ্যাস) মোঃ মকবুল-ই-ইলাহী চৌধুরী বিবিসি বাংলাকে বলেছেন আন্তর্জাতিক বাজারে বিশেষ করে সৌদি আরবে দাম বৃদ্ধির কারণে সব ধরণের গ্যাসের দাম সমন্বয় করা হয়েছে।

প্রতি মাসেই এলপিজির দাম সমন্বয় করার সিদ্ধান্ত রয়েছে বিইআরসির।

আর এই দাম বাড়ানোর ফলে বেসরকারি পর্যায়ে মূল্য সংযোজন করসহ প্রতি কেজি এলপিজির দাম ১০৪ টাকা ৯২ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ১০৯ টাকা ৪২ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে।

যে কারণে বাজারে ১২ কেজি সিলিন্ডারের দাম এক হাজার ২৫৯ টাকা থেকে বেড়ে ১ হাজার ৩১৩ টাকা অর্থাৎ ৫৪ টাকা বেড়েছে।

আর গাড়িতে ব্যবহৃত এলপিজির দাম ৫৮ টাকা ৬৮ পয়সা থেকে বাড়িয়ে ৬১ টাকা ১৮ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে।

 

এর আগে অক্টোবরেই ১২ কেজির একেকটি সিলিন্ডারের মূল্য ১০৩৩ টাকা থেকে বেড়ে ১২৫৯ টাকা আর গাড়িতে ব্যবহৃত এলপিজির দাম ৫০ টাকা ৫৬ পয়সা থেকে হচ্ছে বাড়িয়ে ৫৮ টাকা ৬৮ পয়সা করা হয়েছিলো, যা দশ অক্টোবর কার্যকর হয়েছিলো।

আর এর এক মাসের মধ্যে আবারো দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত হলো যা আজ থেকেই কার্যকর হবে।

কমিশন বলছে সৌদি আরবের ঘোষিত দামের সাথে সামঞ্জস্য রেখে মূল্য সমন্বয়ের জন্য মঙ্গলবার শুনানি করা হয়।

গত এপ্রিলে প্রথমবারের মতো এলপিজির দাম নির্ধারণ করে দিয়েছিল নিয়ন্ত্রক সংস্থা, বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

এরপর এ পর্যন্ত পাঁচবার এলপিজির দাম বাড়ানো হয়েছে। এর মধ্যে বেসরকারি বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানগুলোর আবেদনের কারণে এই বছরেই দুইবার শুনানি করে দাম বৃদ্ধি করা হলো।

বাংলাদেশে রান্নার কাজে এলপিজি সিলিন্ডারের ব্যবহার গত কয়েক বছরে অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

 

এখন গ্রামীণ এলাকাতেও এই সিলিন্ডারের ব্যবহার অনেক বেড়েছে। শিল্প ও আবাসিক মিলিয়ে বছরে দেশটিতে ১২ লাখ মেট্রিক টনের বেশি এলপিজি ব্যবহৃত হয়।

ঢাকার কাছে সাভার বাজারের কাছে বসবাস করেন বেসরকারি সংস্থার চাকুরীজীবী সালমা বেগম। তিনি বলছেন দফায় দফায় বাড়িয়ে মূল্যকে আয়ত্তের বাইরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

” সাড়ে তিনশো টাকার সিলিন্ডার এখন তেরশ টাকা। এই দাম কোথায় যাবে আল্লাহ জানে। এগুলো নিয়ে চিন্তা করলেও ভয় লাগে। এমনিতেই সব জিনিসের দাম অনেক বেড়েছে। এখন গ্যাসের দামও। জানি এর কোন সমাধান নাই,” বলছিলেন।

বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন বা বিপিসির তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে ৪১ লাখ পরিবার এলপিজি ব্যবহার করেন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ