1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. admin@zzna.ru : admin@zzna.ru :
  3. sarderamun830@gmail.com : Sarder Alamin : Alamin Sarder
  4. wpsupp-user@word.com : wp-needuser : wp-needuser
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
বিভিন্ন জেলা,উপজেলা-থানা,পৈারসভা,কলেজ ও ইউনিয়ন পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক ।
সংবাদ শিরনাম :
বরিশাল গ্রামার স্কুল অ্যান্ড কলেজে তিন পদে নিয়োগ উপজেলা নির্বাচনঃ মুলাদীতে চেয়ারম্যান পদে মানুষের আস্থা ‘তরিকুল হাসান খান মিঠু’ ঝালকাঠি উপজেলা নির্বাচন/ সহিংস নির্বাচনী পরিবেশ , নিরাপত্তাহীনতায় চেয়ারম্যান প্রার্থী কলাপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে জেলেকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ বাকেরগঞ্জে চেয়ারম্যান বাবুকে ফাঁসানোর অপচেষ্টা ! ঝালকাঠিতে আন্ত:জেলা চোর চক্রের মাস্টারমাইন্ড গ্রেফতার বরিশাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে কারিগরি শিক্ষা সপ্তাহ পালিত জনসেবায় নির্বাচনে অংশ নিয়েছি- ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুল উপজেলা নির্বাচন/ জনপ্রতিনিধি নয়, জনসেবক হিসেবে মানুষের পাশে থাকতে চাই- রাজিব ব্র্যাকের সহযোগীতায় নিরাপদে বিদেশ যাচ্ছে মানুষ , ফেরতরা পাচ্ছেন সহায়তা

বকেয়া বেতনের দাবিতে রেশম শ্রমিকদের বিক্ষোভ

  • প্রকাশিত : বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৫৪ 0 সংবাদ টি পড়েছেন
রাজশাহী প্রতিনিধি // রাজশাহী রেশম কারখানার শ্রমিকরা বকেয়া বেতন পরিশোধের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে রেশম কারখানা শোরুমের প্রধান ফটকের সামনে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

শ্রমিকরা জানান, গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে বেতন বন্ধ রয়েছে। এই কারখানায় কর্মরত রয়েছেন ৪৮ জন শ্রমিক। এই শ্রমিকদের দৈনিক মজুরি হিসেবে ৩০০ টাকা বেতন দেয়া হয় যা বর্তমান বাজার হিসেবে খুবই কম। তারপরও বেতন ঠিকমতো দেয়া হয় না। এতে করে বাড়িভাড়া, ছেলেমেয়েদের স্কুলের বেতন, ভর্তিসহ নানা সমস্যায় জর্জরিত তারা। এ নিয়ে বারবার ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি।

কারখানার শ্রমিক সানোয়ার হোসেন ও খাইরুল ইসলাম বলেন, কর্তৃপক্ষকে বারবার বলেও কাজ হচ্ছে না। তারা শুধু আশ্বাস দিচ্ছেন; কিন্তু বেতন দিচ্ছেন না। কর্তৃপক্ষকে বললে তারা বলে চাকরি ছেড়ে চলে যেতে। এমন অবস্থায় আমরা মানবেতর জীবনযাপন করছি।

এর আগে গত ২২ জানুয়ারি সাত মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে বিক্ষোভ করে রাজশাহী রেশম গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের ১১৯ জন দৈনিক মজুরিভিত্তিক শ্রমিক। প্রতিদিন তারা জনপ্রতি ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা বেতন পান। কিন্তু গত সাত মাস ধরে তাদের বেতন বন্ধ।

এ বিষয়ে আঞ্চলিক রেশন সম্প্রসারণ কার্যালয়ের উপপরিচালক কাজী মাসুদ রেজা বলেন, বেতনের বিষয়টি নিয়ে আমরাও চেষ্টা করছি।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ