1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. sarderamun830@gmail.com : Sarder Alamin : Alamin Sarder
শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১১:০৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
বিভিন্ন জেলা,উপজেলা-থানা,পৈারসভা,কলেজ ও ইউনিয়ন পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক ।
সংবাদ শিরনাম :
মাদক নির্মূলে তৎপর স্টীমারঘাট পুলিশ ফাঁড়ি, ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ পবিত্র রমজানে ৫ ওয়াক্ত নামাজ জামায়াতে আদায় বরিশালে সাইকেল উপহার পেলো ১৭০ শিক্ষার্থী বরিশালে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চলছে স্পিডবোট কাউখালীতে পাষণ্ড স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী হাসপাতালে কলাপাড়ায় মা ছেলেকে কুপিয়ে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টার ঘটনায় আটক- ১ জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নলছিটিতে ৪ জনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখমের অভিযোগ, শেবাচিমে ভর্তি ছাত্রলীগের গঠণতন্ত্র অমান্য করে বাবুগঞ্জে আহবায়ক কমিটি গঠনে তৎপর জনগণ স্বাধীনভাবে ভোট দিতে পারলেই নির্বাচন গ্রহণযোগ্য: সিইসি আওয়ামী লীগ কথায় নয়, কাজে বিশ্বাস করে: ওবায়দুল কাদের কাঁচামরিচ, পেঁয়াজ, আলুর পর বাড়লো ডালের দাম

ধামরাইয়ে ধর্ষণের শিকার ৮ বছরের শিশু

  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০২২
  • ৪০ 0 সংবাদ টি পড়েছেন
সাভার প্রতিনিধি // সাভারের ধামরাইয়ে পঞ্চাশোর্ধ এক সবজি বিক্রেতা কর্তৃক ৮ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী শিশুটি আহত অবস্থায় সাভারের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

 

মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ধামরাই থানার পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) মোহাম্মদ ওয়াহেদ পারভেজ।

এর আগে গত শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে বাড়ীর পাশের জমির একটি পরিত্যাক্ত ভিটায় নিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে রতন কুমার সাহা নামের ওই সবজি বিক্রেতা। অভিযুক্ত রতন কুমার সাহা (৫৫) ধামরাই উপজেলার নান্নার ইউনিয়নের নান্নার দক্ষিণ পাড়া গ্রামের মৃত শিয়া সাহার ছেলে। সে পেশায় একজন সবজি বিক্রেতা।

এই বিষয়ে শিশুটির মা সীমা বেগম বলেন, আমার মেয়েকে রতন সাহা ধর্ষণ করার পর বাসায় এসে গুরুতর অসুস্থ হয়ে যায়। পরে আমরা স্থানীয় ঠান্ডু মেম্বারকে বিষয়টি জানালে তিনি আমাকে আর অভিযুক্ত রতন সাহাকে ডেকে আমার হাতে ৫ হাজার দিয়ে মহিলা মেম্বার রওশনারা আক্তার এবং অভিযুক্ত রতন সাহার ছেলে লিটন সাহাকে সঙ্গে করে হাসপাতালে পাঠায়। তারাই সেখানে চিকিৎসার যাবতীয় খরচ বহন করেছেন।

তিনি আরো জানান, ঠান্ডু মেম্বার আমাকে বলেছিলেন আমার মেয়ে সুস্থ হলে বিষয়টি তিনি মিমাংসা করে দিবেন। কিন্তু তারা আমার মেয়ের আর কোন খোঁজ খবর নেয়নি তাই আজকে থানায় এসেছি অভিযোগ করতে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

 

এই বিষয়ে নান্নার ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ নুরুল ইসলাম ঠান্ডুর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি মীমাংসা চেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ঘটনার পরদিন বিষয়টি নিয়ে উভয়পক্ষ আমার কাছে এসেছিলো। পরে আমি আহত শিশুটিকে অভিযুক্তের কাছ থেকে দুই হাজার এবং আমার নিজ থেকে তিন হাজার টাকা দিয়ে দ্রুত হাসপাতালে পাঠাই।

বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন আজকে জানিয়েছি। তবে ঘটনা জানার সাথে সাথে পুলিশকে না অবহিত করে চারদিন পর কেন জানালেন এমন প্রশ্ন করলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান।

এই বিষয়ে ধামরাই থানার (ওসি তদন্ত) মোহাম্মদ ওয়াহেদ পারভেজ বলেন, ভুক্তভোগী শিশুটির মা আজ রাতে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এ ব্যপারে একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ