1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. admin@zzna.ru : admin@zzna.ru :
  3. sarderamun830@gmail.com : Sarder Alamin : Alamin Sarder
  4. wpsupp-user@word.com : wp-needuser : wp-needuser
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০২:৩৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
বিভিন্ন জেলা,উপজেলা-থানা,পৈারসভা,কলেজ ও ইউনিয়ন পর্যায় সংবাদকর্মী আবশ্যক ।
সংবাদ শিরনাম :
বরিশাল গ্রামার স্কুল অ্যান্ড কলেজে তিন পদে নিয়োগ উপজেলা নির্বাচনঃ মুলাদীতে চেয়ারম্যান পদে মানুষের আস্থা ‘তরিকুল হাসান খান মিঠু’ ঝালকাঠি উপজেলা নির্বাচন/ সহিংস নির্বাচনী পরিবেশ , নিরাপত্তাহীনতায় চেয়ারম্যান প্রার্থী কলাপাড়ায় পূর্ব শত্রুতার জেরে জেলেকে কুপিয়ে জখমের অভিযোগ বাকেরগঞ্জে চেয়ারম্যান বাবুকে ফাঁসানোর অপচেষ্টা ! ঝালকাঠিতে আন্ত:জেলা চোর চক্রের মাস্টারমাইন্ড গ্রেফতার বরিশাল পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে কারিগরি শিক্ষা সপ্তাহ পালিত জনসেবায় নির্বাচনে অংশ নিয়েছি- ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সাইফুল উপজেলা নির্বাচন/ জনপ্রতিনিধি নয়, জনসেবক হিসেবে মানুষের পাশে থাকতে চাই- রাজিব ব্র্যাকের সহযোগীতায় নিরাপদে বিদেশ যাচ্ছে মানুষ , ফেরতরা পাচ্ছেন সহায়তা

সেতু ভাঙা, সাঁকোয় পারাপার

  • প্রকাশিত : শনিবার, ২ এপ্রিল, ২০২২
  • ১০৮ 0 সংবাদ টি পড়েছেন
মুলাদী প্রতিনিধি //

মুলাদীতে ভাঙা সেতু সংস্কার না হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন দুই গ্রামের মানুষ। উপজেলার বাটামারা ইউনিয়নের সেলিমপুর চরবাটামারা খেয়াঘাট এলাকা সেতুটি দীর্ঘদিন ধরে সংস্কার না করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়। স্থানীয় বাসিন্দারা সেতুতে গাছ-বাঁশ দিয়ে চলাচল করছেন।

জানা গেছে, ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরে চরবাটামারা খেয়াঘাট এলাকায় লোহার সেতুটি নির্মাণ করা হয়। এলজিএসপি-২ প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় পৌনে দুই লাখ টাকা ব্যয়ে ইউনিয়ন পরিষদ এই সেতুটি নির্মাণ করে। নির্মাণের এক বছরের মধ্যেই সেতুটির একাংশ ভেঙে চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে চরবাটমারা ও আলীমাবাদ গ্রামের বাসিন্দারা এই সেতুতে কাঠ-বাঁশ দিয়ে চলাচল শুরু করেন। ৬ বছর ধরে এভাবেই ঝুঁকি নিয়ে চলছে।

চরবাটামারা খেয়াঘাটের ব্যবসায়ী দেলোয়ার হোসেন বলেন, নির্মাণের এক বছর না যেতেই সেতুটি ভেঙে পড়ে। এর পর আর সংস্কার করা হয়নি। তাই ভাঙা সেতুতে সাঁকো বানিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে।

বাটামারা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. সালাহ উদ্দীন অশ্রু জানান, শিগগিরই সেতুটি সংস্কারের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী তানজিলুর রহমান জানান, এলজিএসপি প্রকল্পের লোহার সেতুগুলো নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ ইউনিয়ন পরিষদ করে থাকে। উপজেলা প্রকৌশল দপ্তর থেকে বাজেট ও নকশা করে দেওয়া হয়।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ